যাত্রা পার্টির রথ , গাধাকে ঘোড়া বানানো হচ্ছে -অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

যাত্রা পার্টির রথ , গাধাকে ঘোড়া বানানো হচ্ছে । ২৮ টি রাজ্য টাকার কাছে গেরুয়া হলেও বাংলা মাথা নত করবে না । বাঁকুড়ার ছাতনায় জনসভায় বললেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

বিজেপি র রথযাত্রা , গনতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা ও তিন রাজ্যে হার সহ বিভিন্ন বিষয়ে আজ বিজেপি কে তুলোধোনা করলেন তৃনমুল যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় । আজ বিকালে বাঁকুড়ার ছাতনা বাইপাসের ধারে একটি ময়দানে ব্রিগেডের প্রস্তুতি সভায় যোগ দিয়ে নজের বক্তব্যে আগাগোড়াই বিজেপি র কড়া সমালোচনা করেন অভিষেক । তিনি বলেন এখন বিজেপি নতুন নাটক শুরু করেছে । যাত্রা পার্টি । বলছে রথ আনবে । রথ না সেভেন স্টার হোটেল ।দিল্লী থেকে একটা বাস নিয়ে এসেছে । গাধাকে দেখিয়ে বলছে ঘোড়া আর বাসকে দেখিয়ে বলছে রথ।আমরাজগন্নাথ,বলরাম ,সুভদ্রা ,কৃষ্ণ ,মদনমোহনের রথ জানি । কিন্তু এ কোন রথ । যে রথে স্নান করা যাবে ,আড্ডা দেওয়া যাবে , ছাই পাঁশ খাওয়া যাবে , মল মুত্র ত্যাগ করা যাবে। এখন নাম পালটে বলছে গনতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা । এ রাজ্যে যখন গনতন্ত্র বিপন্ন ছিল তখন আর এস এস , বিজেপি দিলীপ ঘোষ , মুকুল রায়দের টিকি মেলেনি ।
খালি বিভাজনের রাজনীতি করছে বিজেপি । টাকার বিনিময়ে সারা দেশের ২৮ টি রাজ্য গেরুয়া হবে । কিন্তু বাংলা কখনো টাকার বিনিময়ে গেরুয়া হবে না । আমরা জানি আত্ম সমর্পন আর মৃত্যু বরন এক । মৃত্যু বরন করব তবু আত্ম সমর্পন করব না।
আগামী ১৯ জানুয়ারি তৃনমুলের ব্রিগেড সমাবেশে শুধু রাজ্যের নেতা নেত্রীরাই নয় দেশের বিভিন্ন দলের নেতারা আসবেন । সেখানে আসবেন দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল , শরদ পাওয়ার , অখিলেশ যাদব , বিহারের আরজেডি র তেজস্বী যাদব , ডিএমকে র এম কে স্টালিন সহ যশোবন্ত সিনহা , শত্রুঘ্ন সিনহা , রাম জেঠ মালানি , হেমন্ত সোরেন সহ দেশের তাবড় তাবড় নেতারা ।
বাংলার মন্ডা মিঠাই খেতে গিয়ে রাজস্থান , ছত্রিশগড় ও মধ্যপ্রদেশের রসগোল্লা ও বিরিয়ানি বিজেপি র হাতছাড়া হয়ে গেছে । ছত্রিশগড়ে ৯২ শতাংশ ভোটার , মধ্যপ্রদেশে ৯৫ শতাংশ ও রাজস্থানে ৯৪ শতাংশ হিন্দু ভোটার । যারা নিজেদের হিন্দু ধর্মের ধারক ও বাহক বলে প্রচার করে সেই বিজেপি র উপর হিন্দুরাই ভরসা রাখতে পারেনি । ডুমুরজোলার জনসভায় বলেছিলাম ২০১৯ বিজেপি ফিনিশ । কিন্তু ২০১৮ তেই তারা ভোকাট্টা হয়ে গেছে । সারা দেশে তারা আর কোথাও থাকবে না।
সব কিছু নিয়েই বিজেপি রাজনীতি করছে । ধর্ম নিয়ে , গোরু নিয়ে , রাম নিয়ে , হনুমান নিয়ে বিভাজনের রাজনীতি করছে বিজেপি । ২০১৪ সালে যে গোরু দুধ দিয়েছিল ২০১৮ সালে সেই গোরুই মুখে গোবর লেপে দিয়েছে ২০১৯ সালেও তাই দেবে।গোরু দুধ দেয় । গোরু ভোট দেয় না।

Please follow and like us:

Related posts