উদয়পুর যাওয়ার রাস্তার দখল কার হাতে থাকবে তা নিয়ে ফের বিতর্ক শুরু হল ওড়িশা এবং বাংলার

উদয়পুর:: উদয়পুর যাওয়ার রাস্তার দখল কার হাতে থাকবে তা নিয়ে ফের বিতর্ক শুরু হল ওড়িশা এবং বাংলার।

বিগত কয়েক দশক ধরে দুই রাজ্যের কাজিয়া চরমে। সম্প্রতি বাংলার সরকার উন্নয়নী কর্মকান্ডের বোর্ড লাগিয়েছিল উদয়পুরের রাস্তায়। আর সেই বোর্ড বসানোকে ঘিরে পুনরায় বিতর্কের সূত্রপাত। মঙ্গলবার সকাল থেকে ওড়িশার জনপ্রতিনিধি এবং স্থানীয় বাসিন্দারা জমায়েত করেন ওই বোর্ড ভেঙে ফেলার জন্য।খবর পেয়ে দিঘা থানার পুলিস নিয়ে ঘটনাস্থলে যান রামনগরের বিডিও অনুপম বাগ সহ প্রশাসনিক কর্তারা। কিন্তু কোনওভাবেই বোর্ড ভাঙার কাজ বন্ধ করতে পারেনি বাংলার পুলিশ-প্রশাসন। উল্টে তাঁদের সামনেই ক্রেন দিয়ে ভেঙে দেওয়া হয় রাজ্য সেচ দপ্তরের লাগানো সেই বোর্ড। গত বিধানসভা নির্বাচনের সময় থেকে বালেশ্বর জেলা প্রশাসন উদয়পুরের রাস্তাকে পুরোপুরি নিজেদের দখলে নিয়ে নিয়েছে। এই নিয়ে বিতর্কের শুরু হওয়ার পর দুই রাজ্যের সচিব পর্যায়ের বৈঠকও হয়েছিল ওড়িশার ভুবনেশ্বরে।সিদ্ধান্ত হয়েছিল উভয় রাজ্যের নকশা দেখেই পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের। যা আজও হয়নি। ফলস্বরূপ এদিন পুনরায় বিতর্ক তৈরি হল। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের দাবি, উদয়পুরে যাওয়ার রাস্তাটি বরাবরই পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের এক্তিয়ারে ছিল। রাস্তাটি মেরামত বা সম্প্রসারিত করতে গেলে মাঝে মধ্যেই স্থানীয় ওডিশা প্রশাসন তাতে বাধা দিত। ২০১৬- সালে এ রাজ্যে নির্বাচন চলাকালীন আচমকাই ওড়িশা প্রশাসন সেই রাস্তাটিকেই বিরাট চওড়া করে বানিয়ে নিয়েছে এবং রাস্তার পুরো দখল নিয়ে নিয়েছে। অভিযোগ, তারপরও ক্ষান্ত হয়নি ওডিশা প্রশাসন। সীমান্ত এলাকাকে নিজেদের দখলে নিতে তারা লাগাতার চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ।

 

Please follow and like us:

Related posts