মোবাইল ফোনে বেশি কথা বললে নাকি ক্যান্সার হয়।

মুখে মুখে শোনা যায়, মোবাইল ফোনে বেশি কথা বললে নাকি ক্যান্সার হয়। এই নিয়ে গবেষকদের মধ্যে গবেষণাও ছিল তুঙ্গে। এই গবষণায় এবার হাতেনাতে চুড়ান্ত ফল পাওয়া গেল। ক্যান্সারের সম্ভাবনা এবার প্রমাণিত হয়েছে। মোবাইল ফোনে কথা বলার সময় এক রেডিও তরঙ্গ ছড়ানোর ফলেই ম্যালিগন্যান্ট ক্যান্সার শরীরে বাসা বাঁধে। এমনকি, এই তরঙ্গের প্রভাবে ব্রেণ টিউমার সহ ব্রেণ ক্যান্সারের প্রবণতা বৃদ্ধি পায়।

শুধু মোবাইল নয়, অধিক সময় ধরে টেলিভিশনের সামনে বসে থাকলেও রেডিও তরঙ্গ মানব জীবনে স্বাস্থের উপর প্রভাব ফেলে। আর এর ফলেও ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আমেরিকার ‘ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেল্থ”-এর গবেষকদের গবেষণায় এমন তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। যা সারা বিশ্বকে ভাবিয়ে তুলেছে।

অতি কাছ থেকে টেলিভিশনের পর্দায় চোখ না রেখে যতটা সম্ভব দূর থেকে দেখা ভাল। অপরদিকে মোবাইলের ক্ষেত্রে ডান কানে কথা বলা বন্ধ করে বাম কানে মোবাইল ধরে কথা বলা উচিত। তাতেও আবার বেশিক্ষণ কথা বলা ঠিক নয়। পারলে হেডফোন ব্যবহার করে কথা বলা দরকার। মনে রাখতে হবে, মোবাইলে ১৫% চার্চ নেমে এলে মোটেও কথা বলা উচিত নয়। এই সময় মোবাইল তরঙ্গ সর্বোচ্চ হারে শরীরের ক্ষতি করে।

Please follow and like us:

Related posts