জেলা জুড়ে সরস্বতী দেবীর প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা

saraswati puja preparation

দক্ষিন দিনাজপুরঃ প্রতিবছরের ন্যায় এবারো মাঘ মাসের পঞ্চমী তিথিতে অনুষ্ঠিত হবে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব বিদ্যার দেবী সরস্বতী পূজার। পূজা উপলক্ষে শীতকে উপেক্ষা করে কার্যত ভক্তির স্বরুপ প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন দক্ষিন দিনাজপুর জেলার মৃৎশিল্পীরা। আর ৯ দিন বাদে জ্ঞানের আলো ছড়াতে আসবেন বিদ্যার দেবী মা সরস্বতী। তাই মৃৎশিল্পীদেরও বিশ্রামের সময় নেই। দিনরাত প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত তারা। জেলার শহরের পালপাড়ায় সরেজমিনে দেখা গেছে মৃৎশিল্পীরা তৈরি করছে ছোট-বড় বিভিন্ন আকারের প্রতিমা। খড় ও মাটি দিয়ে তৈরি প্রতিমার গায়ে দেয়া হচ্ছে মাটির প্রলেপ। চলছে রোদে শুকিয়ে রঙ ও অলঙ্কার…

প্রকাশ্যে কচ্ছপ কেটে এখনো বিক্রি চলছে, লুপ্তপ্রায় হচ্ছে কচ্ছপ

endengered turtle is selling in open market

দক্ষিন দিনাজপুরঃ বেশ কয়েক বছর ধরে গঙ্গারামপুরে প্রশাসনের নাকের ডগায় বুড়ো আঙুল দেখিয়ে অবৈধভাবে কচ্ছপের মাংস বিক্রি করা হচ্ছে বারবার বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হওয়া সত্ত্বেও কোনো ফল হয়নি তবে কিছু সংখ্যক অসাধু কচ্ছপ ব্যবসায়ী ধরা পড়লেও কিছু অজানা কারনে আবার ছাড়াও পেয়ে গেছে। গঙ্গারামপুরের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ প্রশাসনের নাকের ডগায় প্রকাশ্য দিবালোকে এই অসাধু ব্যবসায়ীরা কচ্ছপ কেটে বিক্রি করছেন কি করে তারা দিনের আলোয় এই কাজগুলো করতে সাহস পায়? নাকি প্রশাসন সব জেনেও চুপ করে আছে, স্থানীয় বাসিন্দারা আরও অভিযোগ করে বলেন…

রবীন হুডের ন্যায় প্রহরীর ভূমিকায় পুরসভার চেয়ারম্যান

দক্ষিন দিনাজপুরঃ এযেন ছোটবেলার গল্পে শোনা রবীন হুড সে যেমন সারা গ্রামের মানুষদের হয়ে প্রহরী সেজে থাকতেন বিপদে আপদে সকলকে উদ্ধার করতেন ঠিক তেমনি আজ থেকে ২৫ বছর আগের গঙ্গারামপুর শহরের চিত্রা মাত্র ৩ বছরে বদলে ফেলেছেন দক্ষিন দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান শহরের মানুষের প্রহরী তথা রবীন হুড প্রশান্ত মিত্র। তিনি জানান, সাধারন মানুষ বা জনগনের টাকা যা দিয়ে চলছে উন্নয়নের কাজ। যে কাজের মান নিয়ে কখনোই কোনোরূপ আপস করা উচিৎ নয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সরকারি প্রকল্পের কাজে নানান দুর্নীতির অভিযোগ সামনে আসে। রাস্তাঘাট ও বিল্ডিং সহ উন্নয়ন মূলক এই…

বুনিয়াদপুর স্টেশনে প্লার্টফর্ম ও ওভারব্রীজ না থাকায় সমস্যায় নিত্যযাত্রীরা

buniadpur station

দক্ষিন দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুর শহর মালদা উত্তর দিনাজপুর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার প্রধান কেন্দ্রস্থল সেই বুনিয়াদপুর শহরের দীর্ঘদিন ধরে দুটি বিষয় নিয়ে দাবি করে আসছেন এলাকার বাসিন্দা থেকে শুরু করে রেল যাত্রীরা। প্রসঙ্গত, বুনিয়াদপুর স্টেশনে দ্বিতীয় কোন প্ল্যাটফর্ম না থাকায় সমস্যায় পড়ছেন নিত্যযাত্রীরা।  তা দীর্ঘদিন ধরে হয়ে চলে এসেছে।  স্টেশনে নেই ওভারব্রীজও।  বাসিন্দা সহ যাত্রীদের অভিযোগ রেলের দুই নম্বর লাইনে  প্লার্টফর্ম না থাকায় যাতায়াত করতে হয় রেললাইনের উপর দিয়ে । শুরু হয় ভোগান্তি । স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি উঁচু ট্রেনে ওঠানামা করতে সমস্যায় পড়েন সকলে।  অনেক সময় পা পিছলে…

সরকারি আবাসনের পেছনে অসামাজিক কার্যকলাপ

দক্ষিণ দিনাজপুরঃ সরকারি আবাসন লাগোয়া কিষাণ মান্ডি এখন দুষ্কৃতী দে আখড়ায় পরিণত হয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুরে কোট মোড় এলাকায় সরকারি আবাসন রয়েছে রয়েছে মহকুমা শাসকের দপ্তর রয়েছে সার্কিট হাউস ঠিক তার পেছনেই রয়েছে কিষাণ মান্ডিতে পানীয় জলের সুব্যবস্থা না থাকায় নেই পানীয় জলের সুব্যবস্থা নিয়মও তো ঠিকঠাক শাখায় পর্যন্ত হয় না আবর্জনা সার ব্যবসায়ী ব্যবসায়ী পানীয় জলের অভাবে প্রতিদিন সমস্যা সেখানে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা থাকে নানা অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে বাসিন্দাদের অভিযোগ জায়গাটিতে আলো না থাকায় সেটি এখন দুষ্কৃতীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে উনিত কিষাণ মান্ডি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলো কর্মকার বলেছে…

বিজেপির ১১৪ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করলো পুলিশ

দক্ষিন দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও ও অবস্থান-বিক্ষোভের জন্য প্রশাসনিক অনুমতি নেওয়া হয়নি। তাই বিজেপির জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার, সাধারণ সম্পাদক বাপি সরকার সহ ১১৪ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল বালুরঘাট পুলিশ। ৬ ডিসেম্বর কোচবিহারের সিতাইয়ে দিলীপ ঘোষের উপর হামলার প্রতিবাদে সারা রাজ্যের পাশাপাশি বালুরঘাটে বিজেপির পক্ষ থেকে অবস্থান-বিক্ষোভ কর্মসূচি নেওয়া হয়। সেইমতো ৭ ডিসেম্বর মুখ্যমন্ত্রীর কুশপুতুল নিয়ে জেলা কার্যালয় থেকে বিজেপির প্রতিবাদ মিছিলটি বের হয়। জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে আসতেই বাধা দেন পুলিশ কর্মীরা। ঘটনায় ধস্তাধস্তি হয় পুলিশ ও বিজেপি কর্মীদের মধ্যে। এরপরই বিজেপর কর্মীরা জেলা প্রশাসনিক…

জেলা পুলিশ প্রশাসনের অভিনব উদ্যোগ, রক্তদান করলেন স্বয়ং পুলিশ সুপার

দক্ষিন দিনাজপুরঃ রক্ত সংকট মেটাতে এবার এগিয়ে এলো দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পুলিশ প্রশাসন। রক্ত দান জীবন দান এই স্লোগানকে মহামন্ত্রের কবজের মতন করে অভিনব উদ্যোগ গ্রহন করে শুক্রবার স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয় গঙ্গারামপুর থানার প্রাঙ্গণে । এদিন এই রক্তদান শিবিরে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় সদ্য যোগ দেওয়া জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী সহ একাধিক পুলিশ কর্মী ও সিভিক ভলেন্টিয়ারেরা। এদিন পুলিশ সুপার নিজে রক্তদান করেন এবং সকলকে এই মহৎ কাজে এগিয়ে আসার আহ্ববান জানান। তার এই কাজকে কুর্নিশ সহ সাধুবাদ জানান জেলার সকল শ্রেনীর মানুষেরা। এদিন পুলিশ…

মাটির সরা বানাতে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা

দক্ষিণ দিনাজপুরঃ শীত মানেই নলেন গুঁড়ের মিষ্টি সুবাস । শীত মানেই পিঠে-পায়েস। আর পিঠে পায়েসের উত্‍সব মানেই পৌষ পার্বণ। পৌষ পার্বণের দিন এগিয়ে আসার সাথে সাথেই মৃত্‍ শিল্পীদের ব্যস্ততা তুঙ্গে। কয়েকদিন ধরেই চরম ব্যস্ততায় নাওয়া-খাওয়া প্রায় ভুলেই গিয়েছেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার মৃত্‍ শিল্পীরা। বাঙালীর বারো মাসে তেরো পার্বণের অন্যতম পার্বণ হল পৌষপার্বণ। ”মাসিমা মালপোয়া খামু” বাংলা সিনেমায় এই বিখ্যাত প্রবাদ যা প্রতিটি বাঙালী বাড়ির অন্দরমহলের অন্তর্নিহিত কথা সেই সময় সিনেমায় প্রকাশ পেয়েছিল। এখনও শীতের সময়টাতে প্রতিটি বাঙালীকে পিঠে পুলির উত্‍সব অর্থাত্‍ পৌষ পার্বণ উত্‍সবে মেতে উঠতে দেখা যায়। পূর্বে শহর…

কয়েকমাস অজ্ঞাতবাস থাকার পর আবার রাজনীতির ময়দানে ফিরলেন সোনা পাল

দক্ষিন দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুর ব্লক এবং হরিরামপুর সংলগ্ন ব্লকগুলির সাধারণ তৃণমূল কর্মীদের সহ সাধারণ মানুষদের বক্তব্য এমনটাই। তাই বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের অর্পিতা ঘোষ-এর নির্দেশে ফের তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে ঘর গোছাতে আসরে সোনা পাল, এমনটাই দাবী খোদ তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বহিস্কৃত হরিরামপুরের দাপুটে নেতা সোনা পাল-এর। পুনরায় রাজনীতির আসরে নেমেই হরিরামপুরে হাজার খানেক মানুষকে নিয়ে সভা করার পাশাপাশি ২০ হাজার মানুষকে নিয়ে হরিরামপুর এলাকায় একটি জনসভা আয়োজনে উদ্যোগী হয়েছেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় সোনা পাল নামে খ্যাত শুভাশীষ পাল। শুধু জনসভা আয়োজনের প্রস্তুতি গ্রহণই নয়, এদিন সোনা পালের বক্তব্যে উঠে…

ঠেকের পোলাপানদের অভিনব উদ্যোগ

  পল মৈত্র,দক্ষিন দিনাজপুরঃ  বালুরঘাট টাউন ক্লাবের পাশে ঠেকের পোলাপানদের এক অভিনব উদ্যোগ পাশে আছি। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট শহরের কলেজ মোড় এলাকায় টাউন ক্লাবের পাশে সন্ধ্যেবেলা সুশীল সমাজের নানান কাজে লিপ্ত অনেকেই আড্ডা দেন। প্রতিদিন সন্ধ্যাবেলায় তারা সেখানে উপস্থিত হন নানান আলাপ আলোচনা করে ন এবং তাই এই শীতকালে অসহায় দরিদ্র মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার করেছেন ঠেকের পোলাপানরা। তারা একটি ব্যানার তৈরি করেছেন যেখানে লিখেছেন ঠেকের পোলাপানরা পাশে আছি এবং সেখানে তারা উল্লেখ করেছেন যে আপনার অপ্রয়োজনীয় জামাকাপড় যেটা আপনারা ফেলে দিচ্ছেন বা বাড়িতে কোন নোংরা মোছার কাজে নুড়ি…