মন ছুটি চাইলে, এই পুজোয় আকাশ আপনাকে ডাকছে

মন ছুটি চাইলে, এই পুজোয় আকাশ আপনাকে ডাকছে সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, এর আগে পুজোয় বেড়ানোর ইচ্ছে পূরণ ট্রেনে কিংবা বাসে হয়ে থাকলে, আপনার জন্য এবার থাকছে আকাশ পথে যাত্রার সুযোগ। এই অফার থাকছে “গো এয়ার”-এর দৌলতে। তাও টিকিটের মূল্য শুরু মাত্র ৯৯৯ টাকায়। কিন্তু ভ্রমণ করতে হবে ৩রা অক্টোবর অর্থাৎ, আগামীকাল থেকে ২২শে অক্টোবরের মধ্যে। বাগডোগরা বিমানবন্দর থেকে টিকিট কাটলে ৯৯৯ টাকায় ভ্রমণ করা যাবে। কিন্তু, কলকাতা বিমানবন্দর থেকে টিকিট কাটলে আপনাকে টিকিট মূল্য ১৩৯৯ টাকা খরচ করতে হবে। এছাড়াও ১২৯৯ টাকা খরচ করে টিকিট কাটা যাবে ভুবনেশ্বর,…

বাংলার পর্যটনঃ জেলা ভিত্তিক উদ্যোগ

গত সাত বছরে তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের শাসনকালে রাজ্য পর্যটন দপ্তর বাংলাজুড়ে অনেক নতুন প্রকল্প গড়ে তুলেছে। এর ফলে দেশের, তথা বিশ্বের পর্যটন মানচিত্রে উল্লেখযোগ্য রাজ্য হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে আমাদের গর্বের বাংলা। Tourism destinations of West Bengal   এক জনরে দেখে নেওয়া যাক জেলাভিত্তিক পর্যটন_উদ্যোগ:   আলিপুরদুয়ার রত্নেশ্বর ঝিল প্রকল্প বাঁকুড়া বড়ঘুটু পাহাড়, বিহারীনাথ পাহাড়, শুশুনিয়া পাহাড় ও মুকুটমনিপুরে থাকার ব্যবস্থা, পরিকাঠামো, পার্ক।বিষ্ণুপুর গেটে ও পুরনো দুর্গের সংস্কার।জয়রামবাটিতে শ্রী শ্রী মাতৃ মন্দিরে থাকার ব্যবস্থা।বিষ্ণুপুরে লালগড় ডে কেয়ার সেন্টার। বীরভূম শ্রীনিকেতনের কাছে ইকো-ট্যুরিজম পার্ক এবং বক্রেশ্বরে থাকার সুবিধার জন্য ১০টি কটেজ…

আজও তিমিরে পতিরামের পথসাথী

দক্ষিণ দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার পর্যটন ব্যাবস্থাকে উত্‍সাহিত করতে পূর্ত বিভাগের পক্ষ থেকে পতিরাম তিনকোণা মোড়ে স্থাপিত হয়েছে পথসাথী। পর্যটক কিংবা জেলায় বিভিন্ন কাজে আসা মানুষজন থাকা ও খাওয়ার জন্য এই পথসাথীকে ব্যাবহার করতে পারেন। বর্তমান বাজার দরের তুলনায় অনেকটা সুলভে পরিষেবা পাওয়া যায় পতিরামের এই সরকারি প্রতিষ্ঠানে। কিন্তু প্রচারের অভাবে মানুষজনর কিছুটা সংকোচ এবং সামান্য কিছু পরিকাঠামোগত সমস্যার জন্য পতিরামের পথসাথী এখনো সেভাবে সাফল্যের মুখ দেখেনি বলে জানালেন দায়ীত্বপ্রাপ্ত মহিলা সংঘের সদস্যা ও নেত্রীরা। ফলে এলাকার স্বনির্ভর সংঘের মহিলাদের কর্মসংস্থান হলেও আর্থিক সুফল তেমন মিলছেনা। পতিরাম তিনকোণা মোড়ে রোটারি…

পর্যটকদের জন্য সুখবর, সান্দাকফুর বিকল্প ট্রেকিং রুট মিরিকে

পর্যটকদের জন্য সুখবর, সান্দাকফুর বিকল্প ট্রেকিং রুট মিরিকে উত্তরবঙ্গে আরও পর্যটক টানতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার৷ পর্যটন ব্যাবসাকে চাঙ্গা করতে এবার সান্দাকফুর বিকল্প ট্রেকিং রুট তৈরী হবে মিরিকে। হবে ইকো পর্যটন কেন্দ্রও। তরাই লাগোয়া মিরিকের চেঙ্গাখোলা-মাঞ্জাখোলাতেই হবে এই নয়া ইকো পর্যটন কেন্দ্র। রাজ্য পর্যটন দপ্তরের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে জোর তৎপরতা। পর্যটন দপ্তর সূত্রে জানানো হয়েছে, মাঞ্জাখোলা সংলগ্ন খপরাইল থেকে ট্রেকিং শুরু। পথে পড়বে পুটুং, ছোটা টিংলিং। রুটের একদিকে থাকবে বাংলার শেষ সীমান্ত গ্রাম খরবানি। অন্যদিকে নেপাল সীমান্ত। রয়েছে অসলে ফলস। ভিউ পয়েন্ট টিংলিং। দুর্গম বস্তি, চা-বাগান ও…

কেজো-পর্যটন প্রসারে উদ্যোগী বাংলা

কেজো-পর্যটন প্রসারে উদ্যোগী বাংলা কেজো-পর্যটন বা মাইস মূলত ব্যবসা কেন্দ্রিক পর্যটনকে বোঝায়। পুরো কথা মিটিং, ইনসেন্টিভস কনফারেন্স, এগ্‌জ়িবিশন। এর আওতায় বিভিন্ন সংস্থার বৈঠক, সম্মেলন, কর্মীদের উৎসাহ দিতে ঘুরিয়ে আনা বা নানান প্রদর্শনী ঘিরে হোটেল, রেস্তোরাঁ, গাড়ি-সহ পর্যটনে যুক্ত সব পক্ষই আয়ের পথ পায়। এবার কলকাতাকে কেজো-পর্যটন বা মাইস এর হটস্পট হিসেবে তুলে ধরতে চায় রাজ্য পর্যটন দপ্তর। রাজারহাটের ঝাঁ চকচকে বিশ্ব বাংলা কনভেনশন সেন্টারকে ঘিরে রাজ্যও মাইস পর্যটন ছড়াতে চায়। গত ৩০শে আগস্ট ইন্ডিয়া কনভেনশন প্রমোশন ব্যুরো (আইসিপিবি) আয়োজিত একটি সম্মেলনে এমনটাই বলেন দপ্তরের মুখ্যসচিব। দরকারে কলকাতা থেকে ডাইরেক্ট আন্তর্জাতিক…

কোনারক এর সূর্য মন্দির কি শুধুই হিন্দুদের মন্দির?

কল্পনা করুন যে আপনি শুধুমাত্র 5 বছর বয়সের একটি বাচ্চা এবং আপনার পিতা-মাতা আপনাকে কোনার্ক সূর্য মন্দিরের কাছে নিয়ে গিয়েছেন। আপনি এই মন্দির মধ্যে কি দেখতে পারবেন? মন্দিরের সর্বনিম্ন স্তরে, আপনি যাা দেখতে পাবেন তাতে যে কোনো শিশু স্বাভাবিকভাবেই আগ্রহী হবে। বিভিন্ন প্রাণী এবং তাদের আচরণের সূক্ষ্ম carvings আছে এই স্তরে। উদাহরণস্বরূপ, এখানে আপনি একটি বন্য হাতি  ধরার  জন্য মানুষ কিভাবে পোষ্য হাতি ব্যবহার করে তা দেখতে পারেন। এটি একটি খাঁচা, এবং আপনি দেখতে পারেন যে ভাস্কর বতরে হাতিরটি উজ্জ্বলভাবে উত্কীর্ণ করেছিল।   কোনারক এর সূর্য মন্দিরটি ছিল প্রাচীন ভারতের Encyclopedia কিন্তু…

মন ছুতি চাইলে কম খরচে ঘুরে আসুন ভাইজাগ বা ভিশাখাপত্তনম

ভাইজাগ বা ভিশাখাপত্তনম ট্যুর খুব কম খরচে Cheap destination Vizag : ৫ /৬ জনের গ্রুপ হল প্রতিজন পিছু খরচ হবে ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা। (তবে খরচ টা আপনাদের ঘোরার ওপর চেঞ্জ হতে পারে) পুরী যেতে যা খরচ হয়, সেই খরচেই ঘুরে আসুন আরো একটি সুন্দর জায়গা এই ভাইজাগ। পাহাড় ও সমুদ্রের মিলনে এই জায়গা অপূর্ব, বাঙালির কাছে দিঘা পুরীর পর ভাইজাগ হলো আরেকটি বিশেষ প্রিয় ও আকর্ষণীয় জায়গা। আমি একটি ট্যুর প্লান দিলাম, আপনাদের প্রয়োজন মতো প্ল্যানটা একটু পরিবর্তন  করে নেবেন। Train and Hotel booking: আপনারা প্রথমেই, মাস চারেক…

রাজ্য পরিবহন দপ্তরের নয়া উদ্যোগ, #প্যাসেঞ্জার #ইনফরমেশন সিস্টেম

রাজ্য পরিবহন_দপ্তরের_নয়া_উদ্যোগ, #প্যাসেঞ্জার #ইনফরমেশন_সিস্টেম। এবার লঞ্চে বসেই জানা যাবে ট্রেন-বাসের সময়। কোন ট্রেন কটায় ছাড়বে, কোন বাস কখন স্টপেজে আসবে! গঙ্গাবক্ষে লঞ্চে বসেই এবার জানতে পারবেন সবকিছু। কোন ভেসেল ক’টার সময় কোন গন্তব্যে যাবে তাও ঘাটে প্রবেশের আগেই জানতে পারবেন যাত্রীরা। ট্রেন-বাস এবং ফেরি পরিষেবাকে একসূত্রে বাঁধতেই পরিবহণ দপ্তরের নয়া এই উদ্যোগ। প্রতি গুরুত্বপূর্ণ ফেরিঘাট এবং ভেসেলে লাগানো হচ্ছে ‘প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেম’। থাকবে ডিসপ্লে বোর্ড। রেলস্টেশনের মতোই সেখানে প্রতি মুহূর্তে আপডেট হবে তথ্য। Please follow and like us:

দিঘা-ঢাকা সাইকেলে সংহতি যাত্রা

দিঘা: দিঘা-ঢাকা সাইকেলে সংহতি যাত্রা শুরু করলেন পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুক, কোলাঘাট এবং হলদিয়ার ৫ যুবক। কন্যা সন্তান রক্ষা, সবুজ রক্ষা এবং বাংলা ভাষা এবং সংস্কৃতিকে ভালোবাসার বার্তা দুই বাংলার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে কোলাঘাটের ভাষা ও সংস্কৃতি সংস্থার উদ্যোগে এই সাইকেল যাত্রা। শুক্রবার সকালে দিঘা থেকে এই যাত্রা শুরু করেছেন তমলুকের বাসিন্দা বীমা কর্মী শোভিনকান্তি চট্টোপাধ্যায়, চিকিৎসক মেচেদার জহরলাল মন্ডল, কৃষক কোলাঘাটের শঙ্কর খাঁড়া, স্নাতকোত্তর পাস যুবক কোলাঘাটের চন্দ্রকান্ত সামন্ত এবং ব্যবসায়ী তথা কোলাঘাট ভাষা ও সংস্কৃতির সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু বেরা। কলকাতা হয়ে পেট্রাপোল সীমান্ত ধরে ১৫ আগস্ট বাংলাদেশের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছবেন এই…

গভীর আর্থিক সংকটে জেট এয়ারওয়েজ

এয়ার ইন্ডিয়ার বেহাল দশার খবর নতুন কিছু নয়। কিন্তু এবার প্রকাশ্যে বেসরকারি বিমান সংস্থা জেট এয়ারওয়েজের বেহাল দশা। সংস্থাটি কর্মচারীদের জানিয়ে দিয়েছে, বেতন কমানোর প্রস্তাব মেনে না নিলে আগামী ৬০ দিনের মধ্যেই কোম্পানি লাটে উঠে যেতে পারে। দেশের বৃহত্তম বেসরকারি বিমান সংস্থা জেট এয়ারওয়েজ। কিন্তু গত প্রায় ২ বছর ধরে লাভের মুখ দেখেনি সংস্থাটি। উড়ানের খরচ এবং কর্মচারীদের বেতন দিতে দিতে ক্রমাগত দেনার ভারে তলিয়ে যাচ্ছে জেট এয়ারওয়েজ। উপায় না দেখে প্রায় বছর ২ আগে সংস্থার কর্মচারীদের ১৫ শতাংশ কম বেতনে কাজ করার প্রস্তাব দেয়। বেশ কিছু কর্মীকে চাকরি থেকে…