ঝাড়গ্রামের মানুষকে কম্বল বিতরণ করতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সঙ্গে রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত শিক্ষিকা লতিকা মাইতি

নিজস্ব সংবাদদাতা : ঝাড়গ্রাম : গতকাল বৃহস্পতিবার “উষ্ণতার ছোঁয়া” নামে ২০ তম *পাশে থাকার অঙ্গীকার* নিয়ে চলো পাল্টাই পরিবার ঝাড়গ্রাম এর কাঁটাবাড়ি যায় । কাঁটাবাড়ির *৪০টি* পরিবারের হাতে কম্বল তুলে দেওয়া হয় সংস্থার পক্ষ থেকে । এই প্রচন্ড শীতে ওরা যাতে একটু উষ্ণতার ছোঁয়া পায় , একটু সুস্থভাবে কাটাতে পারে শীতের বাকি দিনগুলি সেই মনের আশা নিয়ে ওদের পাশে দাঁড়ায় ।

সেইসাথে ঝাড়গ্রাম স্টেশন চত্ত্বরে আরো ৫ জন অসহায় মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হয় কম্বল ।

তাদের এই ক্ষুদ্র কিন্তু মহৎ উদ্দেশ্যমূলক কাজে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত , ভারতজ্যোতি পুরস্কার প্রাপ্ত শিক্ষিকা , সমাজকর্মী *শ্রীমতি লতিকা মাইতি বেরা* মহোদয়া । ওই দিন তিনি নিজে উপস্থিত থেকে কর্মসূচীতে অংশগ্রহণও করেন। তিনি বলেন যুব সমাজ এখন নিজের ছাড়া অপরের কথা ভাবতে ভুলে যাচ্ছে, হচ্ছেনা সঠিক শিক্ষার মূল্যায়ন। চলো পাল্টাই এর সদস্যরা সেই স্রোতের বিপরীতে সাঁতরে চলেছে, তাদের এই লড়াই কে সাধুবাদ জানাই।

উপস্থিত ছিলেন চলো পাল্টাই পরিবারের ঝাড়গ্রাম জেলার সেনানায়ক *তাপস সিংহ* । তাঁর তত্ত্বাবধানে ও সেই সাথে চলো পাল্টাই পরিবারের সকল সেনা সেনানীদের উল্লেখযোগ্য কাজের মাধ্যমে সমগ্র কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন হয় ।

সবশেষে কাঁটাবাড়ির সমস্ত মানুষের অপ্রত্যাশিত আপ্যায়ন সহযোগিতা এবং সবশেষে গোলাপি মল্লিক মাসির মাটির গান *টুসু গান* এক অমূল্য প্রাপ্তি ।

এলাকার মানুষ ভালো কিছু করার আশায় এক গুচ্ছ আবেদনও করেছেন সংগঠনের সম্পাদকের কাছে। মধুসূদন পড়ুয়া জানিয়েছেন এই এলাকার মানুষদের আবেদন আগামী কিছু দিনের মধ্যেই তারা রাখার চেষ্টা করবো। আগামী দিনে আরো কিছু নতুন প্রকল্প নিয়ে এই এলাকায় কাজ করার ইচ্ছাও প্রকাশ করা হয়েছে সংস্থার পক্ষ থেকে।

Please follow and like us:

Related posts