আজও তিমিরে পতিরামের পথসাথী

দক্ষিণ দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার পর্যটন ব্যাবস্থাকে উত্‍সাহিত করতে পূর্ত বিভাগের পক্ষ থেকে পতিরাম তিনকোণা মোড়ে স্থাপিত হয়েছে পথসাথী। পর্যটক কিংবা জেলায় বিভিন্ন কাজে আসা মানুষজন থাকা ও খাওয়ার জন্য এই পথসাথীকে ব্যাবহার করতে পারেন। বর্তমান বাজার দরের তুলনায় অনেকটা সুলভে পরিষেবা পাওয়া যায় পতিরামের এই সরকারি প্রতিষ্ঠানে। কিন্তু প্রচারের অভাবে মানুষজনর কিছুটা সংকোচ এবং সামান্য কিছু পরিকাঠামোগত সমস্যার জন্য পতিরামের পথসাথী এখনো সেভাবে সাফল্যের মুখ দেখেনি বলে জানালেন দায়ীত্বপ্রাপ্ত মহিলা সংঘের সদস্যা ও নেত্রীরা। ফলে এলাকার স্বনির্ভর সংঘের মহিলাদের কর্মসংস্থান হলেও আর্থিক সুফল তেমন মিলছেনা। পতিরাম তিনকোণা মোড়ে রোটারি জংশনের পাশে একেবারে ঝাঁ চকচকে দোতলা নীল সাদা ভবনটিই পথসাথী। পরিভাষায় এর নাম মোটেল। অত্যাধুনিক আসবাবপত্র সহ এই মোটেলে রেস্টুরেন্টের মতো বসে বিশ্রাম নিয়ে টিফিন করা , দুপুরে ও রাতে হোটেলের মতো আহার করা ও রাত্রি যাপনের ব্যাবস্থা রয়েছে খুব সুন্দর পরিবেশে।

পথসাথী তৈরি হওয়ার পর প্রশাসনের তরফে এটি পরিচালনার সম্পূর্ণ দায়ীত্ব তুলে দেওয়া হয় পতিরামের যশোদা রানি সংঘের মহিলাদের হাতে। ৩০ জন মহিলা দায়ীত্ব পাওয়ার পর পথসাথী পরিচালনা করে আসছেন গতবছরের ১ মার্চ থেকে। যশোদা রানি সংঘের সম্পাদিকা লায়লা আরজু , সভানেত্রী সাহেদা বিবি , কোশাধ্যক্ষ টুকু সরকার জানালেন , মূলত প্রচারের অভাবে পথসাথীর সাফল্য আজও সেরকম আসেনি। ঝাঁ চকচকে ভবন দেখে এটাকে বিরাট ব্যায়বহুল মনে করে অনেক মানুষ বা পর্যটক পথসাথীতে ঢোকার সাহস করেন না। অথচ বাজারের তুলনায় এখানে থাকা ও খাওয়ার খরচ অনেক কম। লায়লা আরজু , পপিবালা বর্মন জানান , পথসাথীর জন্য বর্তমানে সামান্য কিছু চাহিদা রয়েছে। এগুলির মধ্যে রয়েছে ১ টি বড়ো ফ্রিজ। এছাড়া বর্তমান চাহিদা অনুযায়ী পথসাথীতে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থা হওয়া খুব প্রয়োজন। এছাড়া কয়েকটি বেড , ভালো চেয়ার , চিমনি ইত্যাদি প্রয়োজন। সম্পাদিকা ও সভানেত্রীর সঙ্গে সহমত পোষন করে সংঘের অপারেটর সোমা দাস। তিনি বলেন , এবারের পুজোর সময় পথসাথী ভালো চলছিল কিন্তু তারপর কিছুটা মন্দাভাব। এরজন্য মানুষজনকে সচেতন করানোর উদ্যোগ প্রশাসনের তরফে নিলে ভালো হয়। সচেতনতার কাজ সঠিকভাবে হলে পথসাথী তৈরির উদ্দেশ্য সফল হবে বলে মহিলা সংঘের সকলে তা মনে করছেন। বস্তুত পার্কিং জোন , ফুলের বাগান , মনোরম পরিবেশ সর্বোপরি অত্যন্ত পরিচ্ছন্ন কাঠামো যুক্ত পতিরাম পথসাথী আরো জনপ্রিয় হয়ে উঠবে।

Please follow and like us:

Related posts