ভাসুরের কু-প্রস্তাবে অতিষ্ঠ হয়ে আত্মঘাতী গৃহবধূ !

ভাসুরের কু-প্রস্তাবে অতিষ্ঠ হয়ে আত্মঘাতী গৃহবধূ !

 

রামনগরঃ  দিনের পর দিন ভাসুরের কু-প্রস্থাবে অতিষ্ঠ হয়ে অবশেষে আত্মঘাতী হল এক গৃহবধূ। এই ঘটনায় মৃতার ভাইয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে ভাসুরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগর থানার গোবিন্দপুর গ্রামে। মৃত গৃহবধূর নাম আশালতা জানা। অভিযুক্ত জয়গোবিন্দ জানাকে শুক্রবার কাঁথি আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বেশ কয়েকবছর আগে রামনগরের হলদিয়া গ্রামের আশালতা রানার সঙ্গে বিয়ে হয় গোবিন্দপুর গ্রামের জয়নারায়ণ জানার সঙ্গে। তাঁদের দুটি কন্যা সন্তানও রয়েছে।

কিন্তু জয়নারায়ণ কর্মসূত্রে মুম্বাইতে থাকে। তাই বাড়িতে দুই মেয়ে নিয়ে থাকেন আশালতাদেবী। আর সেই সুযোগেই দিনের পর দিন আশালতাকে শারীরিক সম্পর্কের জন্য চাপ দিত তাঁর ভাসুর জয়গোবিন্দ জানা। এই ঘটনার বিষয়ে মহিলাটি তাঁর বাপের বাড়িতে দুঃখ করত।

কিন্তু দিনের পর দিন ভাসুরের অত্যাচার সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছিল। অবশেষে বৃহস্পতিবার বাড়িতে থাকা কীটনাশক খেয়ে নেয় গৃহবধু। তাঁকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এরপরেই মৃতার ভাই সুশান্ত রানা রামনগর থানায় ভাসুরের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়েই পুলিশ বৃহস্পতিবার গভীর রাতে রামনগরের হামিরপুর থেকে মৃতার ভাসুরকে গ্রেফতার করে। রামনগর থানার ওসি সত্যজিৎ চানক বলেন, গৃহবধুর ভাই তাঁর বোনের শ্বশুরবাড়ির পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। বাকী অভিযুক্তরা ঘর ছাড়া। তাদের ধরতে পুলিশ তল্লাশি শুরু করেছে।

Please follow and like us:

Related posts