সারদার লাল-ডায়েরীর খোঁজেই কী আবার ছয় পুলিশ আধিকারিক কে তলব সিবিআই এর …

সারদার লাল-ডায়েরীর খোঁজেই কী আবার ছয় পুলিশ আধিকারিক কে তলব সিবিআই এর …

দীপক কুমার সামন্ত .. লোকসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই মোদী সরকারের সিবিআই এ রাজ্যে নড়েচড়ে বসতে চলেছে । বেশ কয়েক মাস নীরব থাকার পর আবার ঘুম ভেঙে জেগে উঠেছে সিবিআই। গত সপ্তাহে রাজ্যের চার জন আইপিএস অফিসারকে সারদা মামলায় ডেকে পাঠানোর পর আবার এই সপ্তাহে একজন আইপিএস সহ ৫ জন পুলিশ অফিসারকে ডেকে পাঠিয়েছে সিবিআই ।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে সারদা চিট ফান্ডের অন্যতম কর্মকর্তা দেবযানী মুখোপাধ্যায় সিবিআইকে জেরায় নাকি জানিয়েছিলেন, সারদা থেকে যেসব রাজনৈতিক নেতা বিশেষ সুবিধা পেত তাদের নাম-ধাম লেখা একটি লাল ডায়েরি রাজ্য পুলিশের তদন্তকারী অফিসাররা বাজেয়াপ্ত করেছিল । একইসঙ্গে সিসিটিভির ফুটেজও বাজেয়াপ্ত করেছিল ওইসব অফিসার । সেই লাল ডায়েরির খোজেই নাকি সিবিআই এখন হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে ।

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে, এই মিসিং লিঙ্ক খোজার জন্যই সিবিআই রাজ্যের চার আইপিএস অফিসারকে তলব করেছিল । তাঁদের ২১ আগষ্ট থেকে ২৪ আগষ্টের মধ্যে দেখা করতে বলা হয়েছিল । কিন্ত ওই আইপিএসরা সিবিআই দপ্তরে যাননি বলে জানা গেছে। অন্যদিকে, সিবিআই আর দেরি না করে সরাসরি তদন্তকারী অফিসারদের ডেকে পাঠিয়েছে । রাজ্য সিআইডি দপ্তরে ইমেল পাঠিয়ে এই আর্থিক তছরুপ কাণ্ডে প্রথমের দিকের তদন্তকারী অফিসার বিধাননগর পুলিশের তৎকালীন ডিসিডিডি অর্ণব ঘোষ ছাড়াও তদন্তকারী আধিকারিক দিলীপ হাজরা, শঙ্কর ভট্টাচার্য, দেবনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রভাকর নাথ, পিনাকী রায়কে সিজিও কমপ্লেক্সে হাজির হতে বলা হয়েছে । সিবিআই সূত্রে জানা যাচ্ছে, সারদা চিট-ফান্ডের তদন্তের জন্য গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দল প্রথমে এই কেলেংকারীর তদন্ত করেছিল । সেই সময় তারা যেসব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বাজেয়াপ্ত করেছিল তার সবটাই সিবিআইকে হস্তান্তর করেনি বলে সিবিআইয়ের অভিযোগ । বিশেষ করে লাল ডায়েরির কোন সন্ধান এখন্ও সিবিআই পায়নি।

বিশেষ সূত্রে জানা গেছে , সিবিআই লাল ডায়েরীর হদিস করতে করলে পারলে নাকি সারদার বৃহৎ ষড়যন্ত্রের হদিস দ্রূত করতে পারবে বলে কেন্দ্রীয় গেয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা আশা করছেন।এমনকি এ বিষয়ে সিবিআই ইতিমধ্যে সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগ জানিয়েছে যে রাজ্য সরকার তাদের তদন্তে সহযোগিতা করছে না। তাই এখন সিবিআই পর পর নোটিস পাঠিয়ে তদন্তকারী অফিসারদের তলব করছে, আর এই তলবে অফিসাররা সিবিআই দপ্তরে হাজির না হলে শীর্ষ আদালতে সিবিআই প্রমাণ করতে পারবে রাজ্য প্রশাসন এই তদন্তে সহযোগিতা করছে না । সেই লক্ষেই সিবিআই এগিয়ে যাচ্ছে বলে আইনজীবীদের অভিমত। এদিকে সিআইডির আধিকারিকরা সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, তারা সিবিআইয়ের কাছ থেকে এ বিষয়ে কোন ইমেল পায়নি।

Please follow and like us:

Related posts