শুভেন্দুকে সিবিআইয়ের ধমক দিলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়

suvendu adhikary vs kailash bijayborgi

রাজ্যের দাপুটে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা তথা রাজ্যের পরিবেশ ও পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বুধবার ইসলামপুরের এক জনসভায় বলেছিলেন, ‘‘ইসলামপুর থেকেই ৩০ হাজার ভোটে লিড পাবে তৃণমূল৷’’ এই কথার পরিপ্রেক্ষিতে শুভেন্দুকে পালটা হুঁশিয়ারি দিয়ে সিবিআই-এর দরজা দেখালেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা রাজ্যে বিজেপির মুখ্য পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়৷

গত ২৬শে সেপ্টেম্বর বিজেপির ডাকা ১২ ঘন্টার বাংলা বনধ শেষ হয়ে যাওয়ার পরেই ইসলামপুরে সভায় বক্তব্য রাখেন শুভেন্দু৷ তিনি বলেন, ‘‘এর আগে জঙ্গলমহল, নন্দীগ্রাম, মুর্শিদাবাদ ফাঁকা করছি৷ এবার ইসলামপুরের পালা৷ সব অশান্তি দূর করব৷’’ এরপর তিনি মাঝে-মাঝেই ইসলামপুর আসবেন, তাও বলেন শুভেন্দু৷

শুভেন্দুর আক্রমণত্মক ভাষণের পর রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ শুভেন্দু অধিকারীর উদ্যেশ্যে বলেন, ‘‘উনি ওই জায়গায় গিয়েছেন কেন? উত্তেজনায় ইন্ধন দিতে গিয়েছেন৷’’ দিলীপের এই মন্তব্যের ফের ১২ ঘন্টার মধ্যেই শুভেন্দুর সম্পর্কে কৈলাস বললেন, ‘‘ওই শুভেন্দু তো চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে রয়েছে৷ ওনার বিরুদ্ধে তো সিবিআই তদন্ত চলছে৷’’

বুধবার শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, ‘‘চমক-ধমক দেখিয়ে লাভ নেই তৃণমূলকে৷ বনধ করে বাংলার ক্ষতি রাজ্য সরকার কিছুতেই মানবে না৷ দুই ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হোক৷ দোষী যেই হোক, শাস্তি সে পাবেই৷ কিন্তু মৃত্যু নিয়ে রাজনীতি করলে পালটা জবাব দেওয়া হবে৷’’

এই ঘটনায় শুভেন্দুকে পালটা জবাবে কৈলাস বলেন, যে দোষী, সে অন্যকে দোষ দিচ্ছে৷ উনি নিজের মন্ত্রীত্ব বাঁচানোর জোর চেষ্টা করছেন৷

Please follow and like us:

Related posts