উদার আকাশ বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ অনুষ্ঠানে ডাঃ নাবিলা খানকে সম্মাননা

উদার আকাশ বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ অনুষ্ঠানে সম্মাননা প্রদান করা হয় সমাজকর্মী ডাঃ নাবিলা খানকে সম্মাননা তুলে দিলেন প্রাক্তন আইপিএস অফিসার মোঃ নিজাম শামীম

সংবাদদাতা, কলকাতা: উদার আকাশ বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ অনুষ্ঠানে সম্মাননা প্রদান করা হয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন কবীর, কবি সুবোধ সরকার, সমাজকর্মী ডাঃ নাবিলা খান, প্রাক্তন আইপিএস অফিসার মোঃ নিজাম শামীম সহ ২৬ জন বিশিষ্টজনদের হাতে সম্মাননা তুলে দিলেন সর্বভারতীয় নবচেতনার সাধারণ সম্পাদক ও উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ।

ভারত ও বিশ্বে এই প্রথম উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ ঐতিহাসিক প্রয়াস নিয়ে প্রকাশ করলেন “ঈদ উৎসব ও মহিষাসুর স্মরণ সংখ্যা ১৪২৫” বিশেষ এই সংখ্যাটি।
উদার আকাশ এই বিশেষ সংখ্যাটির আনুষ্ঠানিক প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই সমালোচনা ও আলোচনার ঝড় উঠেছে সাহিত্যি আকাশে।

“উদার আকাশ” পত্রিকার বিশেষ “ঈদ উৎসব ও মহিষাসুর স্মরণ সংখ্যা ১৪২৫” প্রকাশ অনুষ্ঠান শুক্রবার সন্ধ্যায় কলকাতা প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়।

উদার আকাশ বিশেষ সংখ্যাটি আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করলেন কথাসাহিত্যিক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা ড. হুমায়ুন কবীর, কবি সুবোধ সরকার ‘সাহিত্য অকাদেমির বাংলা উপদেষ্ঠামন্ডলীর আহ্বায়ক’ ও রাজ্য ‘কবিতা আকাদেমি’র চেয়ারম্যান, রাজ্যসভার সাংসদ ও ‘পুবের কলম’ পত্রিকার সম্পাদক আহমেদ হাসান ইমরান, শিক্ষাবিদ আমজাদ হোসেন, প্রাক্তন আইপিএস অফিসার মোঃ নিজাম শামীম, পীরজাদা খোবায়েব আমিন, সমাজকর্মী আজাদ মহলদার, কঙ্কন কুমার গুঁড়ি, সমীর কুমার দাস, হরপ্রসাদ চট্টোপাধ্যায়, ডাঃ নাবিলা খান, সাবির আহমেদ, আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মোঃ মফিকুল ইসলাম, স্বনামধন্য সঙ্গীত শিল্পী পলাশ চৌধুরী, মধুশ্রী হাতিয়াল, শিক্ষাবিদ চৌধুরী হামিদ রৌশন, কুশল মৈত্র প্রমুখ।

প্রত্যেক অতিথিকেই উদার আকাশ পত্রিকার পক্ষ থেকে “উদার আকাশ স্মারক সম্মাননা ২০১৮” প্রদান করা হয় এদিন।

উদার আকাশ পত্রিকার প্রকাশ অনুষ্ঠান অভিনবত্বের ছাপ রাখে এদিন ২৩ নভেম্বর ছিল সম্পাদক ফারুক আহমেদ-এর জন্মদিন। প্রেস ক্লাবে কেক কেটে জন্মদিন পালন করলেন আগত সকলেই মিলে।

কবিতা পড়লেন কবি অরূপ বন্দ্যোপাধ্যায়, ফিরোজ হোসেন।
উপস্থিত ছিলেন কবি অয়ন চৌধুরী, মিজানুর রহমান রোহিত, সবিতা দত্ত ও তাজিমুর রহমান। আবৃত্তি শিল্পী ড. পিনাকী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক সাজ্জাদ হাসান।

উদার আকাশ পত্রিকার পক্ষ থেকে সকল অতিথিদেরকে “উদার আকাশ স্মারক সম্মাননা” প্রদান করা হয়।

অভিনেত্রী আফসা নাইম সকলকে ফুলের স্তবক ও উত্তরীয় পরিয়ে দিয়ে উদার আকাশ পত্রিকার পক্ষ থেকে সম্মাননা জানান‌ অতিথিদের।

বিশিষ্ট অতিথিদের মধ্যে কবি সুবোধ সরকারের হাতে “উদার আকাশ স্মারক সম্মাননা” তুলে দিলেন সাহিত্যিক ও দক্ষ পুলিশ আধিকারিক হুমায়ুন কবীর।

আহমদ হাসান ইমরান ও হুমায়ুন কবীরকেও সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে উদার আকাশ পত্রিকার পক্ষ থেকে।

বহু বিশিষ্ট মানুষের উপস্থিতিতে “উদার আকাশ” পত্রিকার বিশেষ সংখ্যাটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মিলাদুন্নবী সাল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়াসাল্লামমের স্মরণে গজল পরিবেশন করলেন সঙ্গীতকার পলাশ চৌধুরী।

বিশ্বে শান্তি ফেরাতে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়াসাল্লামের জীবন আদর্শ নিয়ে আলোচনা করলেন বিশিষ্ট অতিথি এ টি এম রফিকুল হাসান। আলোচনা সকলকে মুগ্ধ করে।

“উদার আকাশ” পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ ও সহ সম্পাদক মৌসুম বিশ্বাস জানালেন, এই বিশেষ সংখ্যায় কলম ধরেছেন ভারত-বাংলাদেশের বহু লেখক, কবি ও সাহিত্যিকদের একটা বড় অংশ।

গল্প, অণুগল্প, উপন্যাস, কবিতা, প্রবন্ধ, নাটক নিয়ে বিশেষ আলোকপাত, ভাষার উপর বিশেষ প্রবন্ধ, স্মৃতিকথা সহ নানান ধরনের লেখা প্রকাশ করা হয়েছে এবারের সংখ্যায়।

সম্প্রীতির বার্তা নিয়ে সারফুদ্দিন আহমেদ-এর অনবদ্য প্রচ্ছদ যা সকল মানুষকে মুগ্ধ করেছে।

হজরত মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে লিখেছেন বিশিষ্ট লেখক ও কবি তরুণ মুখোপাধ্যায়।

মহিষাসুরকে নিয়ে লিখেছেন প্রখ্যাত প্রাবন্ধিক গৌতম রায়।

বহু গুরুত্বপূর্ণ লেখার সম্ভারে সমৃদ্ধ হয়েছে উদার আকাশ।

গৌতম রায় যে প্রবন্ধ লিখেছেন তা নিয়ে সাহিত্যানুরাগীদের মনে একটা ঝড় তুলেছে।

হারাধোন চৌধুরী, জয়ন্ত সিংহ, কুমারের চক্রবর্তী, সিদ্ধান্ত সিংহ, মিরাতুন নাহার, মোশরফ হোসেন সহ অনেকেই গল্প লিখেছেন।

Please follow and like us:

Related posts