বাজপেয়ী কেনো আজ বাজপেয়ি জী

বাজপেয়ী কেনো আজ বাজপেযীজি

তুহিন শুভ্র আগুয়ান: অবশেষে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জালড়ার পর মৃত্যু হল ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর।আজ বিকেল পাঁচটা পাঁচ মিনিট নাগাদ দিল্লির এইমসে মৃত্যু হয় বাজপেয়ীর।তাঁর মৃত্যুতে শোকাহত সমগ্র দেশবাসী।মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৩।তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।তিনি ট‍্যুইট করে জানিয়েছেন,“তাঁর হাতেই সমৃদ্ধ শক্তিশালী ভারতের ভীত।অটলজির  প্রয়াণে শোকাহত সমগ্র ভারত”।

১৯২৪সালের সালের ২৫শে ডিসেম্বর গোয়ালিয়রে এক দরিদ্র কৃষক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন শ্রীবাজপেয়ী।তাঁর মায়ের নাম কৃষ্ণা দেবী ও বাবা কৃষ্ণ বিহারী।তাঁর বাবা ছিলেন পেশায় শিক্ষক।কানপুর কলেজ থেকে বাজপেয়ী স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন।১৯৯৬ সালে তিনি প্রথমবারের মত প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন মাত্র ১৩ দিনের জন্য এরপর ১৯৯৮ থেকে ২০০৪ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন বাজপেয়ী।ভারতীয় জনতা পার্টি এর নেতা হিসেবে এবং ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস এর বাইরে থেকে তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি একদম পূর্ণ মেয়াদে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন।তাঁর পাওয়া সম্মানের মধ্যে অন্যতম ভারতরত্ন। এছাড়াও তিনি বহু সম্মানে ভূষিত হয়েছিলেন।গত ১১ই জুন থেকে তিনি দিল্লির এইমসে ভর্তি ছিলেন।শ্রী বাজপেয়ী দীর্ঘ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়াই করার পর অবশেষে আজ সূর্যের ডোবার সঙ্গে সঙ্গে অস্তাচলে চলে গেলেন বাজপেয়ী।আজ সকাল থেকেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।তাঁকে দেখতে দিল্লিতে পৌঁছান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তাঁর মৃত্যু যেমন এক রাজনৈতিক যুগের অবসান তেমনি রাজনৈতিক সহকর্মী হারানো বলে মনে করছেন রাজনৈতিক নেতৃত্বরা।

Please follow and like us:

Related posts